জামালপুরে মোটরসাইকেল চুরির পর গলাকেটে হত্যার চেষ্টা, আটক ৩


রাশেদুল ইসলাম, জামালপুর থেকে : জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ী উপজেলার সাতপোয়া ইউনিয়নে গতকাল বৃহস্পতিবার কবির হোসেন (২০) নামের এক ব্যক্তির মটর সাইকেল চুরি করিয়া গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করেছে তারই তিন বন্ধু । উপজেলার সাতপোয়া ইউনিয়নের চর ছাতারিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটনায় ঘাতক তিন বন্ধুকে গ্রেফতার করেছে সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ ।

 জানা গেছে, ভোর রাত প্রায় তিনটার দিকে কবির ও তার তিন বন্ধু মিলে কবিরের বাড়ীতে থাকবে বলে যায় । কবিরসহ তার তিন বন্ধু মিলে কবীরের বাড়ীতে নেশা করে । কবীরের অপর তিন বন্ধু কৌশলে কবীরকে একটু বেশি নেশা করায় । নেশার ঘরে কবীর ঘুমিয়ে পড়লে এক বন্ধুকে রাখে কবীরের পাহাড়ায় । 

অপর দুই বন্ধু মিলে কবীরের ব্যবহৃত মোটরসাইকেরটি চুরি করে নিয়ে যায় সিরাজগঞ্জ জেলার কাজিপুর উপজেলার ভেটুয়া খেয়া ঘাটে থাকা তাদের অন্য সহযোগিদের কাছে রেখে আসে । পরে আবার দুই বন্ধু কবিরের বাড়ীতে ফিরে আসে এবং ঘটনা জানাজানির ভয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় কবীরকে বেøডদিয়ে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করে । 

কবিরের মা কল্পনা বেগম বলেন, সকালে ঘুমন্ত কবিরের গলা কাটা এবং রক্ত ঝড়তে দেখে আমি চিৎকার করলে বাড়ীর অন্য লোকজন এসে কবীরকে হাসপাতালে নেয় এবং ওই তিনজনকে এলাকাবাসী আটকে রেখে পুলিশ হেফাজতে দেয়। এ ঘটনায় ঘাতক তিন বন্ধুরা হল চকবালিয়া গ্রামের জুরান আলীর ছেলে সাকিল (১৯), নগদা গ্রামের হাফিজুরের ছেলে সোহান (২০) ও ধানাটা গ্রামের টিক্কা খানের ছেলে রবিন (১৯)। 

সরিষাবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) জোয়াহের হোসেন খান বলেন, এ ঘটনায়  তিন জনকে  গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে । চুরি যাওয়া মোটর সাইকেলটি উদ্ধারে অভিযান চলছে ।

No comments

Powered by Blogger.