রিফাত হত্যার কারণ উদঘাটনে নানা জল্পনা-কল্পনা আসামিরা গ্রেপ্তার হয়নি এখনো


বরগুনায় প্রকাশ্য দিবালোকে যুবককে কুপিয়ে হত্যার তিন দিন পার হলেও এখনো এর কারণে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা বিভিন্ন পক্ষ থেকে পারিবারিক দ্বন্দ্বের প্রধান কারণ বলা হলেও আছে ভিন্ন মত পরিবারের প্রত্যাশা কারণ যাই হোক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পাবে খুনিরা। বরগুনা সদর উপজেলার তোলা শরীর এখনো বিশ্বাস করতে পারছেন না একমাত্র ছেলে রিফাত আর কখন দিবে না চোখের জলে সন্তানের কবরের প্রার্থনাতে সান্ত্বনা খুঁজে ফিরছেন বৃদ্ধ বাবা।
 

 খুনের কারণ নিয়ে নানা গুঞ্জন থাকলেও দুলাল শরীফ মনে করেন স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে নিয়ে ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বে এই হত্যাকাণ্ড। সেদিনের ঘটনায় আলোচিত চরিত্র মিন্নীর পুরো পরিবার শোকে স্তব্ধ চোখের সামনে প্রিয়জন হারানোর দুঃসহ স্মৃতি তাড়া করে ফিরছে তাকে। তার দাবি নিহত রিফাত ও অভিযুক্ত নারায়ন এর মধ্যে ভালো সম্পর্ক ছিল তবে প্রেমের সম্পর্কের জেরে এই হত্যাকাণ্ড।
 

 বুধবার এ ঘটনায় করা মামলায় এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে প্রধান অভিযুক্ত সাব্বির আহমেদ নয়ন সহ আরো অনেকেই। (পুলিশ সুপার) সারা বাংলাদেশ পুলিশের সকল জেলার পুলিশকে এখন অ্যাটেনশন করা হয়েছে এবং সব জায়গায় তাদেরকে উদ্ধারের জন্য তৎপরতা চালানো হচ্ছে আমরা আশাবাদী যে এই জঘন্য ঘটনা ঘটিয়েছে সন্ত্রাসী কার্যক্রম যারা ঘটিয়েছে তারা ধরা পড়বেই।
 

 সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে শুরু করে পাড়ায় মহল্লায় আলোচনায় রিফাত হত্যার ইসু ব্যক্তিগত রেষারেষির নাকি নৈপুণ্য না অন্য কোন ইস্যু আপাতত দ্বন্দ্বের বিষয়টিকে সামনে রেখে তদন্ত চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

No comments

Powered by Blogger.