বিজিএমইএ'র ভবন ভাঙ্গার কাজ শুরু মালামাল সরানোর প্রস্তুতি চলছে

BGMEA Bhaban Today Broking


বিজিএমইএ'র ভবন টি প্রধান কার্যালয় জিনিসপত্র সরানোর পর আজ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ভবনটির ভাঙার কাজ। এরই মধ্যে সেখানে এসে পৌঁছেছে রাজউকের প্রতিনিধি দল এর আগে ভবন থেকে সময় বেঁধে দেন আদালত তবে পোশাকশিল্পের জন স্বার্থে বিবেচনায় প্রতিবারই বাড়ানো হয়েছে সময় সীমা। শেষ মুচলেকা দিয়ে এক বছরের সময় নেয় বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষ শেষ হয়।

 গত 12 এপ্রিল আদালতের রায় মাথায় রেখে রাজধানীর উত্তরায় চলছে তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ নতুন ভবনের নির্মাণ কাজ দুই তলার উপর ১৩ তলায় এই ভবনের প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ শেষ হয়েছে। পুরনো ভবনের আসবাবপত্র ও যন্ত্রপাতি নতুন ভবনের স্থাপনের মাধ্যমে কিছুদিনের মধ্যেই বিজিএম এর দাপ্তরিক কার্যক্রম শুরু হবে। এখন রাজধানীর হাতিরঝিলে যে বিজিএমই ভবন রয়েছে সেই ভবনের সামনে অবস্থান করছে ভবনটির ভাঙ্গার কর্মীরা।  

 সকালের দিকে এখানে রাজনীতিতে এসেছে বিজিএমই ভবন ভাঙ্গার জন্য তবে ভেতরে রাজউকের এই বিজিএমইএ'র ভবন ভাঙার জন্য একটি টিম এসেছে। তবে প্রথে পানি গ্যাস বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করার কাজটি করবে। বিচ্ছিন্ন করার পরেই ভবনটি ভাঙ্গার কাজ শুরু করবে। বি জি এম এ ভবনটি ভাঙ্গার জন্য যন্ত্রপাতিও নিয়ে আসা হয়েছে। এবং আশেপাশের এলাকা গুলোতে নিরাপত্তার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান নিয়েছে। এর আগে 2011 সালের তেসরা এপ্রিল ভবনটিকে হাতিরঝিলের বিষফোঁড়া আখ্যায়িত করে হাইকোর্টের রায় প্রকাশের 90 দিনের মধ্যে ভাঙার নির্দেশ দেন।

 পরবর্তীতে কিন্তূবিজেএমইএ লিভ টু আপিল করে উচ্চ আদালতে এরপর 2016 সালে এই সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের কিন্তু পরবর্তীতে দফায় দফায় আদালতের কাছে সময় চায় এবং তারা প্রথমে 6 মাস পরে সাত মাস সময় পায় এবং সবশেষে এই বিজিএমইএর এই ভবনটি শুরু হতে যাচ্ছে।

No comments

Powered by Blogger.