আশুলিয়ায় হত্যা মামলার আসামি ফিরোজ আলম বাপ্পীকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার


ডেস্ক নিউজ: আশুলিয়ায় পোশাক শ্রমিক রাসেল খানকে গুলি করে হত্যাকান্ডের প্রধান আসামি ফিরোজ আলম বাপ্পীকে অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে ইয়াবা ও গান পাউডার উদ্ধার করা হয়।


রবিবার (১০ মার্চ) দিবাগত রাতে আশুলিয়ার ভাদাইল এলাকা থেকেই তাদের গ্রেফতার করা হয়। বাপ্পী সাতীরা জেলার দেওহাটা থানাধীন পারুলিয়া গ্রামের মৃত রমজান আলীর মোল্লার ছেলে। বর্তমানে সে আশুলিয়ার পূর্ব ভাদাইলে আজাদের বাড়িতে ভাড়া থাকতো। সে আশুলিয়াসহ বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাই ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে আসছিল।

ডিবি পুলিশ জানান, বাপ্পী কাছ থেকে পাওয়া আধুনিক লকার থেকে চার রাউন্ড গুলিসহ একটি বিদেশি পিস্তল, ২ হাজার পিচ ইয়াবা ও ৫শত ৫০ গ্রাম গান পাউডার উদ্ধার করা হয়। যা দিয়ে শক্তিশালী বোমা তৈরি করা সম্ভব। এছাড়া তার পাসপোর্টটিও পাওয়া যায়। হয়তো সে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাওয়া পায়তারা করছিল।


এ বিষয়ে ঢাকা জেলার (উত্তর) ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল বাশার জানান, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি রাতে আশুলিয়া জামগড়ায় ছিনতাইয়ে বাঁধা দিতে গেলে পোশাক শ্রমিক রাসেল খান গুলি করে হত্যা করে বাপ্পী ও তার সহযোগিরা। সে ঘটনা সূত্রে ধরে বাপ্পী গ্রেফতার করা হয়। তার বাকি সহযোগীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন আরও মামলা ও অপরাধের অভিযোগ রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি রাতে জামগড়া এলাকায় রাসেল খান নামে এক পোশাক শ্রমিককে কয়েক রাউন্ড গুলি করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতাল নিয়ে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরে নিহতের পরিবার বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

No comments

Powered by Blogger.