ধোবাউড়ায় মসজিদে দানকৃত গাছের কালো হাত হতে রেহাই চায়: এলাকাবাসী

ধোবাউড়ায় মসজিদে দানকৃত গাছের কালো হাত হতে রেহাই চায়: এলাকাবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক : ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় গোয়াতলা ইউনিয়নের ঘাগটিয়ারপাড়ে একটি গাছ কর্তন করে এলাকার অবহেলিত মসজিদে দান করেছে বওলা কলেজের শিক্ষক আঃ হালিম। জানা যায়, নিজ পৈতৃক সম্পত্তি থেকে উক্ত গাছটি কর্তন করা হয়েছে। উক্ত গাছ কর্তন বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের জন্য একটি ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলেন।


অভিযোগটিতে দেখা যায়, গাছটি স্কুলের জায়গায়। ধোবাউড়া প্রেস কাবেব সাধারণ সম্পাদকের সাথে ফোনালাপে জানা যায় গাছটি রাস্তার জায়গায়। সূত্রে জানা যায়, গাছটি স্কুলের ৩৩ শতাংশ জায়গায় নয় এবং ১০ ফিট রাস্তার জায়গা হতে আরো ৬ ফুট দূরে ছিল।


এর আগেও আঃ হালিমের দুই ভাই এই জায়গাটির পার্শ্ব স্থান হতে গাছ কর্তন করেছে তাদের নিজেদের কাজে ব্যবহার করার জন্য তাদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ হয় নি কারণ বিষয়টি অভিযোগের নয় কিন্তু তার (আঃ হালিম) এই গাছটি এলাকার অবহেলিত মসজিদ নির্মাণের কাজের জন্য কর্তন করা হয়েছে। এর মাঝে বাঁধা-বিপত্তির শেষ নেই।


এর কারণ একটাই স্থানীয় ইউপি সদস্য আ. রশিদ এর কালো হাত এর পেছনে রয়েছে। অভিযোগকারী ইউপি সদস্য আ. রশিদের বিরুদ্ধে মসজিদের জন্য সরকার থেকে আসা ২০ হাজার টাকার অনুদান আত্মসাতের অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী, যাহা মসজিদ নির্মাণে অনেকটা উন্নতি হতো। এরকম হয়রানি মূলক কালো হাত হতে মুক্তির জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপরে দৃষ্টি আকর্ষন করছে এলাকাবাসী।

No comments

Powered by Blogger.